বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের ল্যাবরেটরিতে জয়পুরহাটের ৩৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৩৬ জনের নমুনা নেগেটিভ হলেও গাজীপুর ফেরত ২০ বছর তরুণী এক গার্মেন্টস কর্মীর শরীরে করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। করোনা শনাক্ত তরুণী হলেন জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার পুনট ইউনিয়নের দক্ষিণ পাঁচগ্রাম গ্রামের বাসিন্দা তিনি।

শনিবার সন্ধায় বগুড়া থেকে যে রিপোর্ট পাঠানো হয় তাতে এই তরুণীর রিপোর্টে করোনা পজেটিভ শনাক্তের কথা নিশ্চিত করেছেন কালাই উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা।

কালাই উপজেলার নির্বাহী অফিসার মোবারক হোসেন পারভেজ বলেন, ঐ আক্রান্ত তরুণী ১০ দিন আগে গাজীপুর থেকে কালাই এসেছিল এবং তিনি হোম কোয়েরেন্টাইনে ছিলেন। আক্রান্ত তরুণীর আশ-পাশের কয়টি বাড়ির সদস্যকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে বাধ্য করা হবে তা মেডিকেল টিমের রিপোর্টের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে এবং আক্রান্ত ব্যক্তির পরিবারের অন্য সদস্যদেরও নমুনা আগামীকাল সংগ্রহ করা হবে।

কালাই উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু তাহের মো. তানভীর হোসেন বলেন, আক্রান্ত তরুণী ও তার স্বামী দুইজনই গাজীপুরে গার্মেন্টেসে কাজ করত। গাজীপুর থেকে আসার পর তারা হোম কোয়েরেন্টাইনে ছিলেন এবং তাদের নমুনা তিনদিন আগে সংগ্রহ করে পাঠানো হয়েছিল। এখনো তার স্বামীর রিপোর্ট আমাদের হাতে আসেনি।

জয়পুরহাট সিভিল সার্জন ডা. সেলিম মিঞা জানান, বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের ল্যাবরেটরিতে পাঠানো নমুনার মধ্যে আজ (শনিবার) কালাই উপজেলার আরো একজনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। আক্রান্ত তরুণীর বয়স ২০ বছর ও গার্মেন্টস কর্মী। আক্রান্ত তরুণীকে আক্কেলপুর উপজেলার গোপীনাথপুর ইনস্টিটিউট হেলথ টেকনোলজির আইসোলেশনে রাখা হবে। আক্রান্ত রোগীকে আইসোলেশনে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

এর আগে কালাই উপজেলার জিন্দারপুর গ্রামে প্রথম দুইজন ও পাঁচবিবি উপজেলার ছোট মানিকগ্রামে ও পূর্ব কড়িয়া গ্রামে দুইজন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এ নিয়ে জেলায় মোট ৫ জন আক্রান্ত হলেন। আগের আক্রান্ত ৪ জনকেও আইসোলেশনে রাখা হয়েছে এবং তারা চারজনই সুস্থ আছেন বলেও জানান তিনি।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20