কলম্বিয়া থেকে সাগর পথে ভেনিজুয়েলায় ঢোকার পর নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে নিহত হয়েছে আট সন্ত্রাসী।

ভেনিজুয়েলার কয়েক জন নেতাকে হত্যা করতে সাগর পথে স্পিড বোটের সাহায্যে একদল সন্ত্রাসী বন্দর নগরী ‘লা গুয়াইরা’র সমুদ্র সৈকতে পৌঁছালে তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হয় বলে সেদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নেসটোর রেভেরোল জানিয়েছেন। 

তিনি বলেছেন, রোববার ভোরে সন্ত্রাসীরা ভেনিজুয়েলায় পৌঁছায়। প্রতিবেশী কলম্বিয়া থেকে আসা এসব সন্ত্রাসীর পেছনে রয়েছে বিদেশি শক্তি। শত্রুদের ভাড়াটে সন্ত্রাসী দলের দুই সদস্যকে জীবিত অবস্থায় আটক করা সম্ভব হয়েছে বলেও তিনি জানান। 

‘লা গুয়াইরা’ শহর থেকে রাজধানী কারাকাসের দূরত্ব মাত্র ৩২ কিলোমিটার। ওই শহরে অবস্থান নিয়ে সহজেই রাজধানীতে নাশকতা চালানো সম্ভব হতো। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শত্রুদের এই নৌ আগ্রাসন মোকাবেলায় ভূমিকা রাখার জন্য গোয়েন্দা বিভাগের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। 

ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর বিরুদ্ধে আমেরিকার একটি অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে বলে খবর প্রকাশিত হওয়ার পরপরই সাগর পথে সন্ত্রাসী অনুপ্রবেশের এ ঘটনা ঘটলো।

সম্প্রতি একাধিক অজ্ঞাত সূত্রের বরাত দিয়ে মার্কিন বার্তা সংস্থা অ্যাসোশিটেড প্রেস বা এপি বলেছে, আমেরিকার কোটিপতিদের অর্থসাহায্য নিয়ে ৩০০ জনের একটি দল প্রেসিডেন্ট মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত ও হত্যা করতে চেয়েছিল। কিন্তু ওই প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।

ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো  মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী নেতা হিসেবে পরিচিত।